একুয়া নিউজ
বাংলাদেশে একুশ শতকের লাগসই মৎস্য প্রযুক্তি বিকাশে

মাছের ক্ষত রোগ (ইপিজুটিকআরসারেটিভসিনড্রোম )

লেখকঃ আল ইমরান   2016-11-18 00:30:35    Visited 869 Times

রোগের নাম:

মাছের ক্ষত রোগ (ইপিজুটিকআরসারেটিভসিনড্রোম)

 

আক্রান্ত মাছের প্রজাতি:

শোল, গজার, টাকি, পুঁটি, বাইম, কৈ, মেনি, মৃগেল, কার্পিও এবং তলায় বসবাসকারী অন্যান্য প্রজাতির মাছ


রোগের লক্ষন  কারণ:

  • হঠাৎ তাপমাত্রার কমতি (১৯° সেঃ এর কম)
  • পিএইচ-এর কমতি (-) 
  • এ্যালকালিনিটির কমতি (৪৫-৭৪ পিপিএম)
  • হার্ডনেস-এর কমতি (৫০-৮০ পিপিএম)
  • ক্লোরাইড এর স্বল্পতা (- পিপিএম)

চিকিৎসাওঔষধপ্রয়োগ:

নিরাময়ের জন্য .০১ পিপিএম চুন .০১ পিপিএম লবন অথবা - ফুট গভীরতায় প্রতি শতাংশ জলাশয়ে কেজি হারে চুন কেজি হারে লবন প্রয়োগ করলে আক্রান্ত মাছগুলো সপ্তাহের মধ্যে আরোগ্য লাভ করে

প্রতিষেধক/প্রতিকার:
আগাম প্রতিকার হিসাবে আশ্বিন কার্তিক মাসে বর্ণিত হারে লবন চুনের প্রয়োগ করলে আসন্ন পরবর্তী শীত মৌসুমে মাছের ক্ষত রোগের প্রাদুর্ভাব থেকে অব্যাহতি পাওয়া যায়

User Comments: